বৃহস্পতিবার  ২২শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং  |  ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ  |  ১৪ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী

আপনার সৌন্দর্য ধূমপান যেভাবে কেড়ে নিচ্ছে

স্বাস্থ্য: ধূমপান শরীরের অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন অঙ্গের ক্ষতি করে, এটা জানেন সবাই। কিন্তু এরপরেও যদি ধূমপান ত্যাগ করতে না চান, তাহলে জেনে নিন শরীরের বাহ্যিক ক্ষতিও হয় এতে। দীর্ঘমেয়াদে ধূমপান আপনার ত্বক, চুল ও দাঁতের অপূরণীয় ক্ষতি করতে সক্ষম।

১) চোখের নিচে ডার্ক সার্কেল
গবেষণায় দেখা গেছে, ধূমপায়ীরা অধূমপায়ীদের তুলনায় কম ঘুমায়। ঘুম কম হবার কারণে ত্বকের অনেক সমস্যাই হতে পারে। তার মাঝে সবচেয়ে স্পষ্ট হলো চোখের নিচে ডার্ক সার্কেলের চিহ্ন।

২) সোরিয়াসিসের ঝুঁকি বাড়ে
সোরিয়াসিস অনেকেরই হয়, অধূমপায়ীদেরও হয়। কিন্তু ধূমপান করাটা সোরিয়াসিসের ঝুঁকি বাড়িয়ে দিতে পারে। প্রতিদিন এক প্যাকেট সিগারেট সেবন সোরিয়াসিসের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয় ২০ শতাংশ।

৩) দাঁত হলুদ হয়ে যায়
ধূমপান করেন? তাহলে আপনি ইতোমধ্যেই নিজের দাঁতের খারাপ অবস্থার কথা জানেন। সিগারেটের নিকোটিন দাঁতে হলুদ দাগ ফেলে দেয়। এমনকি এ থেকে মাড়ির রোগও হতে পারে এবং দাঁত পড়ে যেতে পারে।

৪) ত্বক বিবর্ণ হয়ে যাবে
ধূমপান করলে ত্বক বিবর্ণ, অনুজ্জ্বল ও ফ্যাকাশে হয়ে যায়। ধূমপান শরীরে ভিটামিন সিয়ের অভাব ঘটায়। ভিটামিন সি ত্বকের সুরক্ষা ও ক্ষয় পূরণের জন্য জরুরী। এ ছাড়া নিকোটিন রক্ত চলাচলে বাঁধা তৈরি করে। এ কারণে ত্বক অক্সিজেনের অভাবেও ভুগতে পারে। এসব কারণে ত্বকের সৌন্দর্য নষ্ট হয়।

৫) এইচপিভি ইনফেকশন হতে পারে
এইচপিভি ইনফেকশন যৌন-বাহিত এক ধরণের ইনফেকশন যা ধূমপায়ীদের মাঝে বেশি হয়। আর এর কারণে যৌনাঙ্গে ওয়ার্ট বা ফুসকুড়িও দেখা দিতে পারে।

৬) চোখে ছানি পড়ার ঝুঁকি বাড়ে
ধূমপানের কারণে চোখে অক্সিডেটিভ স্ট্রেস বাড়ে। নিয়মিত ধূমপান করলে চোখে ছানি পড়ার ঝুঁকি বাড়ে ২২ শতাংশ। এমনকি ধূমপান ছেড়ে দেওয়ার পরেও এই ঝুঁকি কমে না।

৭) স্ট্রেচ মার্ক দেখা দিতে পারে
ওজন দ্রুত বাড়া বা কমার কারণে যে কারোই শরীরে স্ট্রেচ মার্ক দেখা দিতে পারে। কিন্তু ধূমপান করলে স্ট্রেচ মার্ক দেখা দেওয়ার ঝুঁকি বাড়ে। সিগারেটের নিকোটিন ত্বকের কানেক্টিভ টিস্যু ও ফাইবারের ক্ষতি করে, ফলে ত্বক দুর্বল হয়ে যায় ও ঊরু ও নিতম্বে সাদাটে স্ট্রেচ মার্ক দেখা দিতে পারে।

৮) চুল পাতলা হয়ে যায়
ধূমপান হেয়ার ফলিকল বা চুলের গোড়ায় ক্ষতি করে। এ কারণে চুল পাতলা হয়ে যায়। শুধু তাই নয়, চুল সহজে ভেঙে যায়, এমনকি চুল পেকেও যেতে পারে। যারা ধূমপান করেন তারা একটা সময়ে পুরোপুরি টাক হয়ে যেতে পারেন।

৯) চেহারায় বয়সের ছাপ পড়বে
খুব কম বয়সেই মুখের আশেপাশে, কপালে, চোখের পাশে, গলায় ও বুকের ত্বকে বলিরেখা অড়তে পারে। আপনার আসল বয়সের তুলনায় আপনাকে বয়স্ক লাগবে।

১০) স্তন ঝুলে যেতে পারে
ধূমপান ক্ষুধা কমিয়ে দেয়। ফলে ধূমপায়ী শুকিয়ে যান। এ কারণে এবং ত্বক নষ্ট হয়ে যাওয়ার কারণে স্তন ও বাহুর নিচের অংশের ত্বক ঝুলে যেতে পারে।

১১) ত্বকে দাগ পড়তে পারে
বয়স্ক মানুষদের ত্বকে যেমন ফোঁটা ফোঁটা দাগ পড়ে, তেমনি দাগ পড়তে পারে ধূমপায়ীদের ত্বকে।

১২) নখ হলুদ হয়ে যেতে পারে
দাঁতের পাশাপাশি ধূমপায়ীদের নখ ও আঙ্গুলেও হলদে দাগ হয়ে যেতে পারে।

সূত্র: রিডার্স ডাইজেস্ট

একটি প্রতি উত্তর ট্যাগ

আপনার ইমেল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত *

*

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com