সোমবার  ২২শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং  |  ৭ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ  |  ১৩ই সফর, ১৪৪০ হিজরী

খালেদা জিয়ার জন্মদিনে বিএনপির দোয়া মাহফিলের কর্মসূচি

ডিএ: দুর্নীতি মামলায় কারাবন্দি খালেদা জিয়ার জন্মদিন পালনে ১৫ অগাস্ট সারাদেশে জেলা-উপজেলায় দোয়া মাহফিলের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। আজ রোববার ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে দলের পক্ষ থেকে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, আগামী ১৫ অগাস্ট বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জন্মদিবস। এই দিবস উপলক্ষে তার কারামুক্তি-রোগমুক্তি ও দীর্ঘায়ু কামনায় জেলা ও উপজেলায় দোয়া মাহফিল হবে। গত দুই যুগ ধরে ১৫ অগাস্ট জন্মদিন পালন করে আসছেন বিএনপিনেত্রী খালেদা জিয়া, যদিও তার আরও কয়েকটি জন্মদিনের হদিস পাওয়া যায়। পাশাপাশি জন্মসাল নিয়েও দুই রকম তথ্য পাওয়া যায়। খালেদা জিয়ার জন্ম ১৯৪৬ সালে বলে তার নতুন করা পাসপোর্টে লেখা রয়েছে। বাংলাপিডিয়াসহ খালেদা জিয়ার জীবনীর উপর রচিত কয়েকটি গ্রন্থে তার জন্ম বছর ১৯৪৫ সাল দেখানো হয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নিহত হওয়ার দিন ১৫ অগাস্ট বিএনপি নেত্রীর জন্মদিন পালন ‘ভুয়া ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যমূলক’ দাবি করে এর সমালোচনা করে আসছেন আওয়ামী লীগ নেতারা। ঢাকার আদালতে এ নিয়ে একটি মামলাও চলছে। জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের সাজার রায়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে খালেদা জিয়া আছেন পুরাতন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে। খালেদার বাবা এস্কান্দার মজুমদারের বাড়ি ফেনী হলেও তিনি দিনাজপুরে ঠিকানা নিয়েছিলেন। খালেদার জন্মও সেখানে। তার মায়ের নাম তৈয়বা মজুমদার। সেনা কর্মকর্তা জিয়াউর রহমানের সঙ্গে ১৯৬০ সালে খালেদার বিয়ে হয়। পঁচাত্তরে পটপরিবর্তনের পর প্রথমে সামরিক আইন প্রশাসক এবং পরে রাষ্ট্রপতি হন জিয়া। ১৯৮১ সালে ৩০ মে রাষ্ট্রপতি থাকা অবস্থায় জিয়া নিহত হলে রাজনীতিতে পা রাখেন খালেদা। প্রথমে দলের ভাইস চেয়ারম্যান এবং তিন বছর পর চেয়ারপারসন হন তিনি। এরশাদবিরোধী আন্দোলনে খালেদা জিয়া বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করেন। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলেন, ‘ক্যান্টনমেন্টে জন্ম নেওয়া দল’ বিএনপির জনভিত্তি তৈরি করে দেন খালেদাই। ১৯৯১ সালে সংসদ নির্বাচনে বিএনপি বিজয়ী হলে বাংলাদেশের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হন খালেদা। ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারির বিতর্কিত নির্বাচনের পর কয়েক দিনের জন্য প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তিনি। ২০০১ সালের নির্বাচনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট জয়ী হলে পুনরায় প্রধানমন্ত্রী হন খালেদা জিয়া। ২০০৮ সালের নির্বাচনে হারের পর সংসদে বিরোধীদলীয় নেতার দায়িত্ব পালন করেন তিনি। খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর জন্মদিন উপলক্ষে আজ রোববার নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের উদ্যোগে আয়োজিত দোয়া মাহফিলে এসে বিএনপি চেয়ারপারসনের জন্মদিনে দলীয় কর্মসূচি ঘোষণা করেন রিজভী। তিনি বলেন, আসন্ন কোরবানির ঈদের দিন সকাল ১১টায় বিএনপি মহাসচিবসহ স্থায়ী কমিটির নেতৃবৃন্দ জিয়াউর রহমানের কবরে ফাতেহা পাঠ করবেন। দোয়া মাহফিলের আগে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় মহিলা দলের সভানেত্রী আফরোজা আব্বাস ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ বক্তব্য দেন। পরে আরাফাত রহমান কোকোর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত হয়।

একটি প্রতি উত্তর ট্যাগ

আপনার ইমেল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত *

*

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com