বুধবার  ২১শে আগস্ট, ২০১৮ ইং  |  ৭ই ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ  |  ১০ই জিলহজ্জ, ১৪৩৯ হিজরী

মানবিক বিবেচনায় চিকিৎসার জন্য খালেদার প্যারোলে মুক্তি চান খন্দকার মাহবুব

ডিএ: রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে মানবিক বিবেচনায় চিকিৎসার জন্য বিএনপির কারাবন্দি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তি চেয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন। বুধবার রাজধানীর মালিবাগ চৌধুরীপাড়ায় নিজ বাসভবনে এক ব্রিফিংয়ে তিনি সরকারের কাছে এ দাবি জানান। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতাল অথবা ঢাকা ক্যান্টনমেন্টের সিএমএইচ-এ চিকিৎসার জন্য সরকার খালেদা জিয়ার সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছে। তবে বিএনপির দাবি, বেসরকারি ইউনাইটেড হাসপাতালে দলীয় প্রধানের চিকিৎসা করানো হোক। সরকারের এ অবস্থানের বিষয়ে খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, যেহেতু ইউনাইটেড হাসপাতালে তিনি (খালেদা জিয়া) চিকিৎসা করাতে আগ্রহী, তার ইচ্ছার গুরুত্ব দেওয়া উচিত। তার চিকিৎসার দায়িত্ব যেন সরকার না নেয়। দীর্ঘ ৪ মাস কারাবন্দি থেকে খালেদা জিয়ার অসুখ আরও বেড়েছে। এবার তার জীবনের আশঙ্কার সৃষ্টি হয়েছে। তাকে দ্রুত চিকিৎসার জন্য প্যারোলে মুক্তি দিন। যেহেতু আপিল বিভাগে তার জামিন নিয়ে কয়েকটি মামলা পেন্ডিং আছে, এ ছাড়া ঈদের কারণে উচ্চ আদালত ও নিম্ন আদালাত বন্ধ রয়েছে। এ অবস্থায় আইনি প্রক্রিয়ায় তাকে মুক্তি দেওয়া সম্ভব নয়। সুতরাং তার চিকিৎসার জন্য একটাই পথ খোলা রয়েছে, তা হচ্ছে প্যারোলে মুক্তি। প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে খালেদার এই আইনজীবী বলেন, সেনাশাসনের সময় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এভাবে মুক্তি পেয়েছিলেন এবং তিনি চিকিৎসার সুযোগ পেয়েছিলেন। এমনকি তিনি প্যারোলে মুক্ত হয়েই বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন। খালেদাকেও সেই সুযোগ দেওয়া উচিত। গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় ৫ বছরের দ- মাথায় নিয়ে পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের পুরানো কারাগারে বন্দি রয়েছেন। সম্প্রতি খালেদার সঙ্গে দেখা করার পর তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক জানান, তিনি সম্ভবত মাইল্ড স্ট্রোক করেছেন। এরপর সরকার বিএসএমএমইউতে চিকিৎসা করাতে চাইলে তিনি রাজি হননি। পরবর্তীতে সিএমএইচ-এ চিকিৎসার কথা বলেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

একটি প্রতি উত্তর ট্যাগ

আপনার ইমেল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত *

*

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com