মঙ্গলবার  ১৮ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং  |  ৪ঠা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ  |  ১১ই রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

রিটার্ন দাখিল বাবদ সরকারের আয় ২২ হাজার কোটি টাকা

ডিএ: গত বছরের তুলনায় এ বছর আয়কর রিটার্ন দাখিল ও আদায় সংক্রান্ত তথ্যাদির সংখ্যা ২ লাখ ১৩ হাজার জন বেড়ে ২০ লাখ ৬ হাজার ৭১৫ জনে দাঁড়িয়েছে। এতে সরকারের আয় হয়েছে ২২ হাজার ২৬৪ কোটি টাকা। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) জিয়াউদ্দিন মাহমুদ জানান, এর আগের বছর আয় হয়েছিলো ১৯ হাজার ৮১০ কোটি টাকা। এ বছর আগের বছরের চেয়ে প্রবৃদ্ধি বেড়েছে ১২ শতাংশ। গতকাল সোমবার বিকেলে রাজধানীর সেগুন বাগিচায় নিজ কক্ষে সাংবাদিকদের কাছে এ তথ্য তুলে ধরেন তিনি। এ সময় এনবিআরের প্রথম সচিব খন্দকার খুরশীদ কামালসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। তিনি বলেন, নিয়ম অনুসারে ৩০ নভেম্বর রিটার্ন দাখিলের শেষ সময় ছিলো। কিন্তু এদিন শুক্রবার হওয়ায় ২ ডিসেম্বর (রোববার) পর্যন্ত সময় বাড়ানো হয়। এ সময়ে আয়কর মেলার যে রকম সাড়া পড়েছিলো, রিটার্ন দাখিলেও এনবিআরের অফিসগুলোতেও ব্যাপক সাড়া পড়ে। ফলে ২০১৭ সালের ডিসেম্বর থেকে ২০১৮ সালের ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত মোট ২০ লাখ ৬ হাজার ৭১৫ জন রিটার্ন দাখিল ও আদায় সংক্রান্ত তথ্য দিয়েছেন। এর মধ্যে ১৬ লাখ ৯১ হাজার ৬১০ জন রিটার্ন দাখিল করেছেন। আর বাকি ৩ লাখ ১৫ হাজার ১০৫ জন রিটার্ন দাখিল করার জন্য নতুন করে সময় চেয়েছেন। যা আগের বছরের চেয়ে ১৪ শতাংশ বেড়েছে। এনবিআরের সদস্য বলেন, এর আগের বছরের ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত ১৮ লাখ ৩৫ হাজার ১৯০ জন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান রিটার্ন দাখিল ও আদায় সংক্রান্ত তথ্য দিয়েছিলো। এর মধ্যে ১৪ লাখ ৭৮ হাজার ৩৩৪ জন রিটার্ন দাখিল করেছিলো। আর সময় চেয়েছিলো ৩ লাখ ৫৬ হাজার ৭৫৬ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান। তিনি বলেন, ২০১৭ সালে রিটার্ন দাখিল বাবদ আয় হয়েছিলো ১৯ হাজার ৮১০ কোটি টাকা। এ বছর আয় হয়েছে ২২ হাজার ২৬৪ কোটি টাকা। যা শতাংশের হিসেবে বেড়েছে ১২ দশমিক ৩৮ শতাংশ। তার মধ্যে কেবল নভেম্বর মাসেই আয় হয়েছে ৫ হাজার ২৪৮ কোটি টাকা। গত বছর এ মাসে আয় হয়েছিলো ৪ হাজার কোটি টাকা। এতে আগের বছরের তুলনায় প্রবৃদ্ধি বেড়েছে ২৭ শতাংশ।

একটি প্রতি উত্তর ট্যাগ

আপনার ইমেল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত *

*

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com