আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সিরিয়ায় এক সন্দেহভাজন আমেরিকান আইএস সদস্যের খোঁজ মিলেছে। সিবিএস নিউজ খবর দিয়েছে, সিরীয় যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের মিত্র শক্তি কুর্দি বাহিনীর হাতে ধরা পড়েছে ১৬ বছর বয়সী ওই মার্কিনি। তবে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে এখনও এ খবর নিশ্চিত করা হয়নি। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আইএস-এর বিরুদ্ধে বিজয় দাবি করে সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেওয়ার কয়েকদিনের মাথায় সেখানে মার্কিন আইএস সদস্যের খোঁজ মিললো।সিরিয়ায় আইএসবিরোধী লড়াইয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম সহযোগী কুর্দি আধাসামরিক বাহিনী ওয়াইপিএ। তাদের দাবি, ৭ জানুয়ারি (সোমবার) সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলে ইরাকি সীমান্তের ১৫ মাইল দূরবর্তী এক স্থান থেকে ৮ জন বিদেশি আইএস সদস্যকে আটক করেছে তারা। এদের মধ্যে ১৬ বছর বয়সী আমেরিকান কিশোর সৌলে নোয়াহ সু ছিল। ওয়াইপিএ দাবি করেছে, ওই কিশোর বেসামরিক মানুষের ওপর হামলার পরিকল্পনায় জড়িত। আটক অন্য আইএস সদস্যরা জার্মানি, মধ্য এশিয়া, ইউক্রেন ও রাশিয়া থেকে আসা। যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে এ ঘটনায় এখনও কোনও আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেওয়া হয়নি। তবে এই কিশোরের আমেরিকান পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেলে সে হবে কুর্দিদের হাতে ধরা পড়া দ্বিতীয় মার্কিনি। আগেও একজন মার্কিন আইএস সদস্যকে আটক করতে সমর্থ হয়েছিল তারা। ২০১৮ সালের ১৯ ডিসেম্বর সিরিয়া থেকে মার্কিন বাহিনীকে পুরোপুরি প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। টুইটার পোস্টে তিনি বলেন, ‘আমরা সিরিয়ায় আইএস-কে পরাজিত করেছি। ট্রাম্পের প্রেসিডেন্সিতে শুধু আইএস-কে হটানোর জন্যই তাদের সেখানে (সিরিয়া) রাখা হয়েছিল।’ টুইটারে দেওয়া আরেক পোস্টে ট্রাম্প বলেন, আইএসের বিরুদ্ধে ঐতিহাসিক জয়লাভের পর এখন আমাদের মহান তরুণদের বাড়িতে নিয়ে আসার সময় হয়েছে। তবে আল জাজিরা ও দ্য ইন্টারসেপ্টের অনুসন্ধান বলছে, সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিলেও সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলে মার্কিন বাহিনীর হামলা জোরদার হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে