ডিএ: রাজধানী উত্তরায় এসি বিস্ফোরণ দগ্ধ স্বামীর মৃত্যুর একদিন পর মারা গেলেন স্ত্রীও। গতকাল সোমবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বিলকিস বেবী (৪০)। আর গত রোববার দুপুরে মারা যান বেবীর স্বামী আলমগীর ভূইয়া (৫০)। ঢাকা মেডিকেল ফাঁড়ির পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া চিকিৎসকের বরাত দিয়ে বলেন, দুজনের শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে উত্তরা তিন নম্বর সেক্টরের ৪১ নম্বর হোল্ডিংয়ের ছয়তলা ভবনের পঞ্চমতলার একটি কক্ষে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনারস্থলে পৌঁছে আগুন নেভায়। আলমগীরের ভাই তানজিন শাহারিয়ার জানিয়েছিলেন, রাতে তার ভাই-ভাবি একটি কক্ষে আর তাদের সন্তানরা আরেক কক্ষে ঘুমিয়েছিল। ভোর রাতে হঠাৎ এসি বিস্ফোরণে ভাই-ভাবির কক্ষে আগুন লেগে যায়। সন্তানরা অন্য কক্ষ থেকে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে। আলমগীর ব্যবসা ছাড়াও বিমানবন্দর থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও তার স্ত্রী বিলকিস উত্তরা পশ্চিম থানার মহিলা লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন বলে শাহরিয়ার জানিয়েছেন। তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জে গ্রামের বাড়িতে ভাই-ভাবিকে দাফনের প্রস্তুতি নিয়েছেন তারা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে