ডিএ: যশোরে শিশুকে চকলেট দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে মন্দিরে ধর্ষণচেষ্টায় প্রকাশ ব্যানার্জি (৪২) নামে এক পুরোহিতকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। বুধবার দুপুরে যশোরের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আকরাম হোসেন তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। তার আগে বিচারক ২২ ধারায় ধর্ষণচেষ্টার শিকার শিশুটির জবানবন্দি রেকর্ড করেন। প্রকাশ ব্যানার্জি যশোরের মণিরামপুর উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের কালীপদ ব্যানার্জির ছেলে। তিনি যশোর সদর উপজেলার বিরামপুর গ্রামের একটি মন্দিরে পুরোহিতের দায়িত্ব পালন করছিলেন। ওই শিশুর পরিবার ও স্থানীয়দের অভিযোগ, রোববার দুপুরে প্রকাশ ব্যানার্জি বিরামপুরের ওই মন্দিরে পূজা করছিলেন। সেখানে শিশুরাও উপস্থিত ছিল। একপর্যায়ে প্রকাশ ওই শিশুকে চকলেট দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে আলাদা একটি কক্ষে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালান। সেসময় শিশুটি চিৎকার শুরু করলে আশপাশের লোকজন গিয়ে তাকে উদ্ধার করে মায়ের হাতে তুলে দেয়। পরে শিশুটির মা প্রথমে মৌখিকভাবে পুলিশকে অবহিত করেন এবং পরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত মঙ্গলবার রাতে প্রকাশ ব্যানার্জিকে গ্রেফতার করে গতকাল বুধবার আদালতে পাঠায় পুলিশ। যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সমীর কুমার সরকার বলেন, পুরোহিত প্রকাশ মন্দিরে ধর্ষণ চেষ্টার মতো জঘন্য অপরাধে জড়িয়ে পড়েন, এ ঘটনায় থানায় মামলা রেকর্ড হয়েছে এবং প্রকাশকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এদিকে, প্রকাশের এই অপকর্মের কথা জানতে পেরে অপমানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন তার স্ত্রী। তিনি এখন যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে