ডিএ: গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় মনিরুল ইসলাম (২৫) নামে এক যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের উত্তরঝাপর গ্রাম থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। মনিরুল ওই ইউনিয়নের কাশিয়াবাড়ী গ্রামের আসাদুল ইসলামের ছেলে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মনিরুলের স্ত্রী তন্নী ও শাশুড়ি জাহানারাকে আটক করা হয়েছে। পলাশবাড়ী থানার ওসি হিপজুর আলম মুন্সি জানান, চার/পাঁচ মাস আগে তন্নীর সঙ্গে মনিরুলের বিয়ে হয়। ঘটনার রাতে মনিরুল উত্তরঝাপর গ্রামে তার শ্বশুর বাড়িতে অবস্থান করছিলো। রাতে শ্বশুর তারা মিয়ার বাড়ির সামনে মনিরুলের গলাকাটা লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খরব দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে লাশ উদ্ধার করে। তিনি আরো জানান, মনিরুলের শ্বশুর বাড়ির লোকজনের দাবি, পারিবারিক কলহের জের ধরে মনিরুল নিজেই নিজের গলাকেটে আত্মহত্যা করেছেন। তবে প্রাথমিকভাবে বিষয়টি হত্যাকা- বলে ধারণা করা হচ্ছে। হিপজুর আলম জানান, ঘটনার পর থেকে শ্বশুর তারা মিয়া পলাতক রয়েছেন। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মনিরুলের স্ত্রী ও শাশুড়িকে আটক করা হয়েছে। প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে