ডিএ: বগুড়ার শেরপুরে দুদল চরমপন্থির ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুজন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। নিহত লিটন (৩৫) ও আফসার (৪৫) সর্বহারা পার্টির সদস্য বলে পুলিশ জানিয়েছে। তাদের পুরো পরিচয় পাওয়া যায়নি। তাদের লাশ মর্গে রয়েছে। শনিবার প্রথম প্রহরে শেরপুরের ভবানীপুর ইউনিয়নের ভবানীপুর বাজার সংলগ্ন সেতুর উপর তাদের পাওয়া যায় বলে জানিয়েছেন শেরপুর থানার ওসি হুমায়ুন কবির। তিনি বলেন, রাত দেড়টায় ভবানীপুর এলাকায় দু’দলের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কিছু সন্ত্রাসী পালিয়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থলে দুজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তারা একজন লিটন ও অপরজন আফসার নামে পরিচয় দেয়। লিটন ও আফসারকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকেই মৃত ঘোষণা করেন বলে ওসি জানান। তাদের কাছ থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, ৮ রাউন্ড গুলি, দুটি চাপাতি ও তিনটি পোস্টার পাওয়ার কথা জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে বলে ওসি জানান। উত্তরাঞ্চলে চরমপন্থিদের দৌরাত্ম্য কমে যাওয়ার মধ্যে সম্প্রতি এসব দলের কয়েকশ সদস্য সরকারের আহ্বানে সাড়া দিয়ে আত্মসমর্পণ করেন। তার পরপরই এই নিহতের ঘটনা ঘটল।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে