ডিএ: একদিনের ব্যবধানে বান্দরবানের দুর্বত্তদের গুলিতে জনসংহতি সমিতির (জেএসএস) আরও একজন সমর্থক নিহত হয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার নিহত ব্যক্তির নাম জয় মনি তঞ্চঙ্গ্যা (৪৫)। তার ছেলে জনসংহতি সমিতির স্থানীয় নেতা রিপন তঞ্চঙ্গ্যাকে না পেয়ে তাকে গুলি করা হয় বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সদর উপজেলা কুহালং ইউনিয়নের কিবুক ছড়ার ৩ নং রাবার বাগান এলাকায়। গত মঙ্গলবার রাতে রাজবিলা ইউনিয়নের তাইংখালী বাজারে জনসংহতি সমিতির কর্মী বিনয় তঞ্চঙ্গ্যাকে গুলি করে হত্যা করা হয়। দুর্বৃত্তরা অপহরণ করে নিয়ে যায় আরেক কর্মী পুরাধন তঞ্চঙ্গ্যাকে। কুহালং ইউপি চেয়ারম্যান সানুপ্রু মারমা বলেন, কয়েকজন অন্ত্রধারী ৩ নং রাবার বাগান এলাকার তঞ্চঙ্গ্যা পাড়ায় হানা দিয়ে রিপন তঞ্চঙ্গ্যাকে খোঁজ করে। তাকে ঘরে না পেয়ে সন্ত্রাসীরা তার বাবা জয় মনি তঞ্চঙ্গ্যাকে গুলি করে হত্যা করে। জয় মনি ওই এলাকায় কাঠের লাকড়ির ব্যবসা করতেন। সদর থানার ওসি শহিদুল আলম চৌধুরী বলেন, খবর পেয়ে সেখানে সেনাবাহিনী ও পুলিশ গেছে। লাশ উদ্ধারের প্রক্রিয়া চলছে। কারা ঘটনাটি ঘটিয়েছে, তা এখনই বিস্তারিত কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে জনসংহতি সমিতির নেতারা অভিযোগ করেছেন, মিয়ানমারের বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান লিবারেশন পার্টির (এএলপি) দলছুট সদস্যরা এতে জড়িত। সংগঠনটির জেলা সভাপতি উছোমং মারমা বলেন, এএলপি নামে নামে একটি দলছুট সশস্ত্র সংগঠন আমাদের নেতাকর্মীদের একের পর এক হত্যা করে যাচ্ছে। তারাই এ ঘটনায় জড়িত থাকতে পারে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে