বাগেরহাট প্রতিনিধি: বাগেরহাটের কচুয়ায় বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরিত হয়ে একজন আহত হয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় গজালিয়া ইউনিয়নের লড়ারকুল গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।
তবে এটি সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনা বলে দাবি করছে ওই আহত ব্যক্তির পরিবার।
আহত আলতাফ শেখ (৪৬) লড়ারকুল গ্রামের শেখ মোসলেম আলীর ছেলে। তাকে পুলিশ হেফাজতে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে কচুয়া থানার ওসি শেখ সফিকুর রহমান বলেন, বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে আলতাফ শেখের বাড়িতে হাঠাৎ একটি বিস্ফোরণের শব্দে প্রতিবেশীরা ছুটে যান। তারা দেখেন আলতাফের পরিবারের সদস্যরা আলতাফকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছেন।
প্রতিবেশী ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে জানিয়ে ওসি বলেন, “আলতাফের বাড়িতে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। বোমা তৈরি করতে গিয়ে আলতাফ আহত হয়েছেন, পুলিশ এর সত্যতা পেয়েছে। আলতাফকে আমরা হেফাজতে নিয়েছি। পুলিশ পাহারায় তার চিকিৎসা চলছে।” সে গজালিয়া ইউনিয়ন শ্রমিকদলের সভাপতি বলেও ওসি জানান।
তবে তিনি কেন কী উদ্দেশ্যে বোমা তৈরি করছিলেন তা জানতে পুলিশ চেষ্টা করছে বলে ওসি জানান। এছাড়া আলতাফের বিরুদ্ধে কচুয়া থানায় চুরি,ডাকাতি সহ একাধিক মামলা রয়েছে। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
বাগেরহাট সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক সজল কান্তি বিশ্বাস বলেন, বিকাল ৪টার দিকে আহত আলতাফ শেখের পরিবারের সদস্যরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তার মুখের বিভিন্ন স্থানে ঝলসে গেছে। দুইচোখেও আঘাত লেগেছে।
“আমরা তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দিচ্ছি। কোনো বিস্ফোরক দ্রব্যের স্পিøন্টারের আঘাতে আলতাফ আহত হয়েছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি। তবে সে এখন শঙ্কামুক্ত।”

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে