অর্থনীতি: অনলাইনে কেনাকাটায় মূল্য সংযোজন করের (মূসক/ভ্যাট) হার কিছুটা কমিয়ে ধরল সরকার। নতুন বাজেটে এ ক্ষেত্রে ভ্যাটের হার সাড়ে ৭ শতাংশ প্রস্তাব করা হয়েছিল। সংশোধন করে তা ৫ শতাংশ করার আশ্বাস দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। জাতীয় সংসদে ১৩ জুন ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী। ওই বাজেটের সঙ্গে ভ্যাট আইন বাস্তবায়নের ঘোষণা দেওয়া হয়। এতে ই-কমার্স ও রাইড শেয়ারিং সেবায় ভ্যাটের হার ধরা হয় সাড়ে ৭ শতাংশ। বাজেটের অর্থবিল পাসের আগে গত শনিবার অর্থমন্ত্রীর লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ব্যবসায়ী মহলের দাবি ও একটি বিকাশমান খাত বিবেচনায় অনলাইনে পণ্য বিক্রি ও রাইড শেয়ারিং সেবার ক্ষেত্রে ভ্যাটের হার কমিয়ে ৫ শতাংশ আরোপের প্রস্তাব করা হলো। অবশ্য যাঁদের দোকান নেই, সেই সব অনলাইন পণ্য বিক্রির প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে পাঁচ বছরের জন্য ভ্যাট অব্যাহতি দাবি করেছিল ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব)। তাদের যুক্তি হলো, বাংলাদেশে ই-কমার্সের বিকাশ মাত্র শুরু হয়েছে। ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোকে ভ্যাটের আওতায় আনতে আরও কয়েক বছর সময় দেওয়া উচিত।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে