বিনোদন: ভারতের পাঞ্জাবের জনপ্রিয় র‌্যাপার হানি সিংয়ের গাওয়া ‘মাখনা’ গানটি টি-সিরিজের ইউটিউব চ্যানেল এসেছে গত বছর ২১ ডিসেম্বর। এরপর গানটি দেখা হয়েছে ২১ কোটি ৬ লাখ ৮২ হাজার ৬৪১ বার। এবার গানটির শিল্পী হানি সিংয়ের বিরুদ্ধে এই গানে অশ্লীল শব্দ ব্যবহারের অভিযোগে মামলা করা হয়েছে। পাঞ্জাব মহিলা কমিশন থেকে অভিযোগ করা হয়েছে, হানি সিং তাঁর এই গানে মহিলাদের নিয়ে অশ্লীল রসিকতা করেছেন, যা খুব আপত্তিকর ও অপমানজনক। হানি সিংসহ যাঁরা এই গানের সঙ্গে জড়িত, তাঁদের সবার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য দাবি করেছে প্রতিষ্ঠানটি।
পাঞ্জাব মহিলা কমিশনের চেয়ারপারসন মনীষা গুলাটি সংবাদমাধ্যমকে জানান, পাঞ্জাব মহিলা কমিশনের পক্ষ থেকে পাঞ্জাব পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেল, ইন্সপেক্টর জেনারেল এবং অ্যাডিশনাল চিফ সেক্রেটারির কাছে অভিযোগ করা হয়েছে। গানটি ইউটিউবে এসেছে ছয় মাস আগে। এতদিন পর কেন পাঞ্জাব মহিলা কমিশন এই অভিযোগ করেছে? মনীষা গুলাটি বলেন, ‘আমাদের অনেক কিছু দেখতে হয়। হানি সিংয়ের গানটি আমাদের এখন নজরে এসেছে। মহিলাদের সম্মানহানি হয়, হানি সিং এমন সব শব্দ ও বাক্য ব্যবহার করেছেন তাঁর এই গানে। মহিলাদের সম্মান ও অধিকার রক্ষার জন্য আমরা কাজ করছি। তাই আমরা এর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার আবেদন জানিয়েছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘মহিলাদের ব্যাপারে এমন আপত্তিকর শব্দ ব্যবহার করে তৈরি গান এ দেশে অবিলম্বে নিষিদ্ধ করা উচিত।’পাঞ্জাব মহিলা কমিশন থেকে মোহালির মাতাউর থানায় ‘মাখনা’ গানের শিল্পী হানি সিং এবং প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টি-সিরিজের মালিক ভূষণ কুমারের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করা হয়। মোহালির সিনিয়র এসপি হরিচরণ সিং ভুল্লার সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, গত মঙ্গলবার সকালে মোহালি পুলিশ হানি সিংয়ের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। ১২ জুলাইয়ের মধ্যে তদন্ত করে পুলিশকে এই মামলার ব্যাপারে আদালতে প্রতিবেদন জমা দিতে হবে।
এর আগে ২০১৩ সালে গানে অশ্লীল শব্দ ব্যবহার করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন হানি সিং। ওই গানে হানি সিং লিখেছিলেন ‘ম্যায় হুঁ বলৎকারি’। এ ছাড়া ‘লাক টোয়েন্টি এইট’, ‘ব্লু আইজ’, ‘কিকলি কালেরদি’ আর ‘ব্রাউন রং’ গান নিয়েও বিতর্কে জড়ান তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে