ডিএ: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সংবিধান ও নির্বাচন কারো জন্য অপেক্ষা করবে না। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর হোটেল রেডিসনের সামনে বিমানবন্দর সড়কের সৌন্দর্যবর্ধন ও আধুনিকায়ন কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন ওবায়দুল। এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে জেলে পাঠানোর কোনো চিন্তাভাবনা সরকারের নেই। দোষী সাব্যস্ত হলে আদালত তাঁকে কী দন্ড দিবে এবং কত বছরের জেল দেবে অথবা দন্ড মওকুফ করবে, সেটা আদালতের বিষয়। সময় এবং স্রোত কারো জন্য যেমন অপেক্ষা করে না, কনস্টিটিউশন (সংবিধান) অ্যান্ড ইলেকশান (নির্বাচন) ওয়েট ফর নান (কারো জন্য অপেক্ষা করে না)। সংবিধান এবং নির্বাচনও কারো জন্য অপেক্ষা করবে না। নির্বাচন সংবিধান অনুযায়ী চলবে। ওবায়দুল বলেন, তামিলনাডুর মুখ্যমন্ত্রী পদের খুব কাছাকাছি গিয়েও শশীকলা নটরাজনকে জেলে যেতে হয়েছে। তার জন্য ভারত সরকার কিংবা নির্বাচন বসে থাকবে না। খালেদা জিয়ার জন্যও বসে থাকবে না। ওই সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন রাজধানীর বনানী থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত সৌন্দর্যবর্ধন, ডিজিটালাইজেশন ও রক্ষণাবেক্ষণ প্রকল্পের উদ্যোক্তা সংস্থা ভিয়েনাল ওয়ার্ল্ডের কর্মকর্তারা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে